বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ০৩:১২ পূর্বাহ্ন

রাজাপালং ৯নং ওয়ার্ডের উপ-নির্বাচনের মোরগ মার্কার প্রার্থী হেলাল উদ্দীনের খোলা চিঠি

খোলা চিঠি: / ৫৪৭ বার
আপডেট সোমবার, ১৯ অক্টোবর, ২০২০, ৬:৫০ অপরাহ্ন

প্রিয় রাজাপালং ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের সর্ব-স্তরের জনসাধারন…….
আসসলামুআলাইকুম, আদাব, নমস্কার……..

আপনারা জানেন গত ২৪ জুলাই ৯নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আলহাজ্ব বখতিয়ার মারা যাওয়ায় ৯নং ওয়ার্ডটি শুন্য ঘোষনা করে উপনির্বাচনের তফসীল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। সেই তফসীল মতে আগামীকাল ২০ অক্টোবর এই ওয়ার্ডের উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আপনারা সকলেই জানেন দীর্ঘ প্রায় ২০ থেকে ২৫ বছর যাবত আমার পিতা মরহুম বখতিয়ার আহমদ মেম্বার এই ওয়ার্ডে ৩ বারের ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়ে সৎ ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করে এসেছেন। আমার পিতা সবসময়ই কুতুপালং গ্রামবাসীর পাশে থেকে সেবা করে গেছেন। ২০১৭ সালে যখন আমার আব্বা অসুস্থ হয়ে পড়েন তখন আমি ওনার হয়ে বিভিন্ন সামাজিক ও উন্নয়নমূলক কাজে অংশগ্রহন করে আসছি। বিশেষ করে সরকারের নানা সহযোগিতা (ভিজিডি, ভিজিএফ, ১০ টাকার চাল, বিভিন্ন এনজিও থেকে প্রাপ্ত সহায়তা, নগদ টাকা বিতরণ) ও উন্নয়নমূলক কাজ স্বচ্ছভাবে সম্পন্ন করে এসেছি। সর্বোচ্চ সততা বজায় রেখে এই কাজ গুলো উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও রাজাপালং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরীর নির্দেশনায় করে এসেছি। বর্তমানে আমার ওয়ার্ডের প্রায় ১৬০০ জনের মতো সরকারের খাদ্য সহায়তা পাচ্ছে। এছাড়াও সাম্প্রতিক করোনা পরিস্থিতিতে প্রায় হাজার খানেক পরিবার নগদ অর্থ সহায়তা বিভিন্ন এনজিও থেকে পেয়েছে। যা খুব সুন্দর ও সুষ্ঠু ভাবে সম্পন্ন হয়েছে। প্রতিটি বিতরণ অনুষ্ঠানে নিজে উপস্থিত থেকে স্বচ্ছতা ও নিরপেক্ষতা বজায় রেখে এসব কর্মকান্ড শেষ করতে পেরেছি। এছাড়াও সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়নেও পাশে থেকেছি। সরকারী উদ্যোগের পাশাপাশি নিজের উদ্যোগেও অনেক উন্নয়ন কর্মকান্ড সম্পাদন করেছে। বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নানা কর্মকান্ড, সামাজিক সংগঠনের উদ্যোগে কর্মকান্ড সহ জনগনের পাশে থাকতে পারি এরকম সকল কিছুতেই আমাদের পরিবারের ভূমিকা ছিলো অগ্রগামি। যে যখন গিয়েছে সবাইকে নিয়ে একসাথে কাজ করার চেষ্টা করেছি। এসব কাজ করতে গিয়ে ৯নং ওয়ার্ডের প্রতিটা পাড়ায় মহল্লায় যাওয়ার সুযোগ হয়েছে। সবার সাথে একটা আন্তরিক সম্পর্ক সৃষ্টি হয়েছে। আমার পরিবার গত ২৫ বছর যাবত ৯নং ওয়ার্ডের পাশে ছিলো। সকলের বিপদে আপদে আমাদের কাছে এসে কেউ নিরাশ হয়নি। বরং যতটুকু পারি পাশে থাকার চেষ্টা করেছি। সাম্প্রতিক সময়ে আমার পরিবারে যে দুর্ঘটনা সংঘটিত হয়েছে তা আপনারা সবাই জানেন। তবুও এই ওয়ার্ডের মানুষের পাশে থাকার যে প্রানান্তকর চেষ্টা তা অব্যাহত রাখতে আমার মরহুম পিতার নেতৃত্বের ধারাবাহিকতা রক্ষায় আমি আগামীকাল অনুষ্ঠিতব্য উপ-নির্বাচনে মোরগ মার্কা নিয়ে মেম্বার প্রার্থী। আমার পিতা যেমন এই এলাকার মানুষের জন্য নিঃস্বার্থ ভাবে সেবা করে গেছেন সেই ধারাবাহিকতা অক্ষুন্ন রাখার জন্য মহান আল্লাহর রহমত ও আপনাদের সকলের দোয়া, সহযোগিতায় জনগণের পাশে থাকার জন্য এই নির্বাচনে আপনাদের সমর্থন কামনা করছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: