বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ০৩:৪৭ পূর্বাহ্ন

একটার পর একটা ধর্ষণের ঘটনা ঘটছে, বিচার হচ্ছে না: নুর

ডেস্ক নিউজ:: / ৩০৯ বার
আপডেট বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৩:২৫ অপরাহ্ন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সাবেক সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুর বলেছেন, একটার পর একটা ধর্ষণের ঘটনা ঘটছে, সর্বশেষ সিলেটের এমসি কলেজে ঘটনা ঘটল। কিন্তু ঘটনাগুলোর কোনো বিচার হচ্ছে না। আমরা খুব লজ্জিত হই যখন আমাদের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন- ধর্ষণের ঘটনা কোনো দেশে না ঘটে। এসব কথা বলে বাংলাদেশে ধর্ষণের বৈধতা দিতে চায়।

বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সিলেটের এমসি কলেজে গৃহবধূ ধর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদে সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদ আয়োজিত পদযাত্রা শুরুর পূর্ব মুহূর্তে তিনি এসব কথা বলেন।

নুর বলেন, ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র সংগঠন বলেছিল- ‘স্বাধীনতাবিরোধী যারা তারা ছাড়া অন্য কেউ যদি ধর্ষণের শিকার হয় তবে তাদের বিচারের দাবিতে ছাত্রলীগ মাঠে থাকবে।’ আমার প্রশ্ন- আজকে স্বাধীনতার ৫০ বছরে বাংলাদেশে কোনো স্বাধীনতাবিরোধী আছে? তাহলে স্বাধীনতাবিরোধী ট্যাগ দিয়ে যারা ধর্ষণকে বৈধতা দিতে চায়- তাদের বিরুদ্ধে গণ আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। নাহলে আমাদের মা-বোনেরা এ দেশে স্বাভাবিক জীবনের নিশ্চয়তা পাবে না।

তিনি বলেন, আজকে এখানে আপনারা যারা তরুণরা দাঁড়িয়ে আছেন- তারা একদিন বাবা হবেন। এসব ধর্ষকদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে না পারলে আপনার সন্তানরাও নিরাপদ থাকবে না। আপনারা দেখেছেন, কিছুদিন আগে আইন ও সালিশকেন্দ্র বলেছে- গত ৮ মাসে ৮৮৯টি ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। অর্থাৎ প্রতি মাসে গড়ে ১১১টি ধর্ষণের ঘটনা ঘটছে। এই যে ১১১টি ধর্ষণের ঘটনা এর মধ্যে কয়টি ঘটনার বিচার হয়েছে? রাজনৈতিক প্রভাবে বিচারের দীর্ঘ সূত্রতা। যেখানে আইনে বলা আছে, ৮০ দিনের মধ্যে ধর্ষণের বিচার করতে হবে। কিন্তু এই ধর্ষণের বিচার হতে কয়েকবছর পর্যন্ত সময় লেগে যায়।

ডাকসুর সাবেক ভিপি বলেন, যেই বিচার ব্যবস্থা একটি ঘটনার বিচার করতে দীর্ঘ সময় নেয় সেই বিচার ব্যবস্থার প্রতি আমরা ধিক্কার জানাই। যে বিচার ব্যবস্থা মানুষের অধিকার রক্ষা করতে পারে না সেই বিচার ব্যবস্থার প্রতি আমরা ঘৃণা প্রকাশ করি। যেই বিচার বিভাগ একজন প্রধান বিচারপতিকে রক্ষা করতে পারে না তাদের প্রতি জনগণের আস্থা নেই।

তিনি বলেন, টানা ১৪ বছর এই সরকার ক্ষমতায় আছে জনগণ পাচ্ছে- খুন, গুম, হত্যা, ধর্ষণ ও নির্যাতন। জনগণ সুফল পায়নি সুফল পেয়েছে ক্ষমতাসীন দলের লুটেরা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: