সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ০২:৩৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
বাইশারীতে বর্তমান ও সাবেক চেয়ারম্যান অনুসারীদের হামলার অভিযোগ উখিয়া অনলাইন প্রেসক্লাব নির্বাচনে বিভিন্ন পদে ১৮জনের মনোনয়ন সংগ্রহ উখিয়া অনলাইন প্রেসক্লাব’র নির্বাচন : জেলাজুড়ে জল্পনা-কল্পনা উখিয়ার লম্বাশিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অপরাধ জগৎ নিয়ন্ত্রণে যারা ক্যাম্পে কথিত আরসা সদস্যকে গুলি করে হত্যা বৈশ্বিক তহবিল ঘাটতির সাথে খাপ খাইয়ে নিতে সমন্বিত পরিকল্পনা অতীব জরুরী উখিয়ার পূর্বরত্না থেকে গভীর রাতে সংঘবদ্ধ ১৮ রোহিঙ্গা আটক প্রকাশিত সংবাদ প্রসঙ্গে ফুয়াদ আল-খতীব হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বক্তব্য উখিয়া কলেজের গভর্ণিং বডির শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচন সম্পন্ন: অধ্যাপক তহিদ ও শাহআলম নির্বাচিত রোহিঙ্গা হেড মাঝি খুনের ঘটনায় ৩জন আসামীকে গ্রেফতার করেছে এপিবিএন-৮

বৃষ্টিতে কক্সবাজার পৌর শহরে মানুষের দুর্ভোগ চরমে

ডেস্ক নিউজ:: / ১৭৪ বার
আপডেট রবিবার, ১৬ আগস্ট, ২০২০, ৬:০৭ অপরাহ্ন

বৃষ্টিতে ময়লা-কাঁদায় একাকার হয়ে গেছে কক্সবাজার পৌর শহর। ভাঙ্গা ও কর্দমাক্ত রাস্তা নিয়ে মানুষের দুর্ভোগের শেষ নেই। শুধু প্রধান সড়ক নয় পৌর এলাকার বেশির ভাগ উপ সড়কেরও বেহাল দশা।

স্থানীয়দের অভিযোগ, অতীতে কোন সময় এত ভাঙ্গা সড়ক দেখেনি তারা। এত উন্নয়নের জিগির তোলা হলেও কেন পৌর শহরের এই করুণ দশা? প্রশ্ন সচেতন মহলসহ সাধারণ জনগণের। এনিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও নানা বিরূপ প্রতিক্রিয়া লক্ষণীয়। তাই সরকারের ইমেজ ধরে রাখতে দ্রুত সড়ক সংস্কারের দাবি জানান স্থানীয়রা।

পথচারীরা বলেন, নারী-পুরুষ সবাই শুধু ভাঙ্গা রাস্তা নিয়ে কথা বলে কারণ মানুষ সত্যিকার অর্থে রাস্তায় চলতে চরম অসুবিধায় পড়েছে। সারা দেশের সব জেলার মধ্যে কক্সবাজারেই সরকারের বেশি উন্নয়ন কর্মকা- চলছে। অথচ কক্সবাজার শহরের রাস্তাঘাটের কোন উন্নয়ন হচ্ছে না বলে দাবি করেন তারা।

একদিনের বৃষ্টিতে আজ শনিবার পৌর শহরের অবস্থা খুবই কাহিল হয়েছে। যত্রতত্র ময়লা, আবর্জনা আর কাঁদায় সয়লাব হয়ে পড়েছে। গাড়ীগুলো চলতে গিয়ে রাস্তায় উল্টে যাচ্ছে। গতকাল শহরের সুগন্ধায় ত্রাণ, শরণার্থী ও প্রত্যাবাসন কমিশনের একটি গাড়ীও রাস্তায় খাদে পড়ে যায়। বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও আলোচনা-সমালোচনা হয়েছে। খোদ জেলা ছাত্রলীগ সভাপতিও ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন বিষয়টি নিয়ে। শহর ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রাশেদুল আলম রিপনও বিষয়টি তুলে আনেন তার ফেসবুক পেজে।

টেকপাড়া এলাকার মোহাম্মদ হোসেন বলেন, আমাদের সামনের সড়ক এক সময় মাটির ছিল। পরে ইট বিছিয়ে গাড়ি চলতো। এরপরে পাকা রাস্তা হয়েছে। অনেক কিছুই দেখেছি। তবে রাস্তার এরকম করুণ অবস্থা আগে কখনো দেখিনি। জানিনা কর্তৃপক্ষ কি করে! পৌর এলাকার বেশির ভাগ উপ সড়ক এতই নাজুক মানুষ রাস্তায় বের হলেই মন্দ কথা বলে।

মোহাজেরপাড়া এলাকার আবু জানান, পর্যটন শহর কক্সবাজারের এসব সড়কে প্রতিদিন প্রায় ১০ হাজার যানবাহন চলাচল করে। ফলে সড়কের এ খানা-খন্দকের কারণে প্রায় সময় শহরে যানজট লেগেই থাকে। দ্রুত এ সমস্যার সমাধান করা না হলে, সাধারণ পথচারীদের কষ্টের সীমা থাকবে না। দিন দিন এসব সড়কের খানা-খন্দক বড় বড় গর্তে পরিণত হওয়ায় যানবাহন চলাচলেও সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে।

সরেজমিন দেখা গেছে, শহরের কলাতলী থেকে বাজারঘাটা হয়ে বাসটার্মিনাল পর্যন্ত প্রধান সড়কের খুবই নাজুক অবস্থা। এছাড়া গলি-উপ গলির অবস্থা আরো ভয়াবহ। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে দ্রুত সড়ক ও উপ-সড়কগুলো সংস্কার করার জন্য সচেতন কক্সবাজারবাসী অনুরোধ জানান।

সুত্র: সংবাদ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: