মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১২:৩৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
নুরুল হুদা গ্রেপ্তার বাইশারীতে বর্তমান ও সাবেক চেয়ারম্যান অনুসারীদের হামলার অভিযোগ উখিয়া অনলাইন প্রেসক্লাব নির্বাচনে বিভিন্ন পদে ১৮জনের মনোনয়ন সংগ্রহ উখিয়া অনলাইন প্রেসক্লাব’র নির্বাচন : জেলাজুড়ে জল্পনা-কল্পনা উখিয়ার লম্বাশিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অপরাধ জগৎ নিয়ন্ত্রণে যারা ক্যাম্পে কথিত আরসা সদস্যকে গুলি করে হত্যা বৈশ্বিক তহবিল ঘাটতির সাথে খাপ খাইয়ে নিতে সমন্বিত পরিকল্পনা অতীব জরুরী উখিয়ার পূর্বরত্না থেকে গভীর রাতে সংঘবদ্ধ ১৮ রোহিঙ্গা আটক প্রকাশিত সংবাদ প্রসঙ্গে ফুয়াদ আল-খতীব হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বক্তব্য উখিয়া কলেজের গভর্ণিং বডির শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচন সম্পন্ন: অধ্যাপক তহিদ ও শাহআলম নির্বাচিত

চট্টগ্রামে ২২১ ভরি স্বর্ণ লুকানোর সময় ‘বাহক’ আটক, মালিক হাজারি গলির

চট্টগ্রাম প্রতিদিন: / ৩৯২ বার
আপডেট শনিবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২০, ৩:৪৯ পূর্বাহ্ন

চট্টগ্রাম থেকে অবৈধভাবে ঢাকা পাচারের সময় ১৪টি স্বর্ণের বারসহ পুলিশের হাতে আটক হয়েছেন উত্তম সেন (৩৫) নামের এক পাচারকারী। স্বর্ণের এই ১৪টি বারে ২২১ ভরি স্বর্ণ রয়েছে। যার বাজারমূল্য প্রায় এক কোটি ৪৩ লাখ ৬৫ হাজার টাকা। উত্তম সেন পটিয়ার ব্রাহ্মণঘাটা সেনবাড়ীর মৃত মানিক সেনের পুত্র।

শুক্রবার (২৭ নভেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে পাঁচটায় চট্টগ্রাম নগরীর কোতোয়ালী থানার স্টেশন রোড এলাকা থেকে উত্তম সেনকে আটক করে পুলিশ। উত্তম নিজেকে স্বর্ণের বাহক বলে স্বীকার করেছে। অবৈধ এসব স্বর্ণের প্রকৃত মালিক হাজারী গলির এসএন শিল্পালয়ের স্বত্ত্বাধিকারী সনজিত ধর। সনজিত পটিয়ার গোবিন্দারখীল রাখাল বাবুর বাড়ির শিবু ধরের ছেলে।

স্বর্ণের বার উদ্ধারের ঘটনায় কোতোয়ালী থানায় দায়ের হওয়া মামলা সূত্রে জানা গেছে, ১৪টি বারের মধ্যে তিনটির গায়ে ইংরেজিতে খোদাই করা AL ETIHAD DUBAI-UAE 10 TOLAS, 999.0 লেখা, দুটির গায়ে ARG 10 TOLAS 999.0 লেখা, পাঁচটির গায়ে GULF GOLD REFINERY 10 Tolas GOLD 999.0 লেখা, দুটি গায়ে s.a.m 10 TOLAS GOLD 999.0 লেখা আছে। আর দুটির গায়ে কোনো কিছু লেখা ছিল না।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসিন চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘আমাদের টহল টিম ১৪টি স্বর্ণের বারসহ উত্তম সেন নামের এক ব্যক্তিকে আটক করেছে। জিজ্ঞাসাবাদে তিনি জানিয়েছেন এসব স্বর্ণ চোরাচালানীর মাধ্যমে বিদেশ থেকে চট্টগ্রাম আনা হয়েছে। আবার অবৈধভাবে ঢাকা পাচার করা হচ্ছিল। স্বর্ণের মালিক হাজারীগলির সনজিত ধর নামের এক ব্যবসায়ী। তিনি পলাতক রয়েছেন।’

ওসি মহসিন আরও জানান, ‘আটক উত্তম সেন ও পলাতক সনজিত ধর পরস্পর জোগসাজশে ২২১ ভরি স্বর্ণ পাচারের উদ্দেশ্যে নিজেদের আয়ত্বে রেখে ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫-বি/২৫-ডি ধারার অপরাধ করেছেন।’

তিনি বলেন, ‘তাদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। আটক উত্তম সেনকে আমরা আদালতে সোপর্দ করবো। সনজিত ধরকে আটকে আমাদের অভিযান অব্যাহত আছে।’

প্রসঙ্গত, গত ১০ নভেম্বর আটটি স্বর্ণের বারসহ জোসেফ উদ্দিন রুমন নামের এক যুবককে আটক করেছিল কোতোয়ালী থানা পুলিশ। রুমন মোবাইল সেটের ব্যবসার আড়ালে স্বর্ণ চোরাচালানে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছিলেন পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে। রুমনের আয়ত্ব থেকে উদ্ধার করা স্বর্ণের পরিমাণ ছিল ৮৮ ভরি। তার ১৭ দিনের ব্যবধানে একই এলাকা থেকে উদ্ধার হলো ২২১ ভরি স্বর্ণ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: