বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ০৫:৫৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
উখিয়ার ডেইলপাড়া হোছাইন বিন আলী (রাঃ)মাদ্রাসার অভিভাবক সম্মেলন সম্পন্ন নাইক্ষ্যংছড়িতে ৪২ তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলা-২০ইং’র উদ্বোধন বেতন বৈষম্য: ২৬ নভেম্বর থেকে কর্মবিরতিতে নাইক্ষ্যংছড়ির স্বাস্থ্য সহকারিরা শোকের সাগরে ভাসছে ফুটবল বিশ্ব করোনায় একদিনেই ১২ হাজারের বেশি মানুষের প্রাণহানি আর্জেন্টিনার কিংবদন্তি ফুটবলার ম্যারাডোনা আর নেই সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তির চিকিৎসার জন্য গফুর চেয়ারম্যানের চেক হস্তান্তর ১৫ দিন পর ৯ জেলেকে হস্তান্তর করল বিজিপি ৯ জেলেকে ফেরত দিতে মিয়ানমারের পতাকা বৈঠক চলছে প্রাথমিক ও মাধ্যমিকে লটারির মাধ্যমে ভর্তি: শিক্ষামন্ত্রী

স্বামীকে নির্দোষ দাবী করে উখিয়ায় স্ত্রী’র সংবাদ সম্মেলন

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি: / ২৩৮ বার
আপডেট বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ০৫:৫৭ অপরাহ্ন

কক্সবাজারের উখিয়ায় স্বামীকে নির্দোষ দাবী করে সংবাদ সম্মেলন করেছে বুলবুল আকতার নামে অসহায় এক গৃহবধূ।

১৬ আগস্ট রোববার বিকেল ৫টায় উখিয়া অনলাইন প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে রাজাপালং ইউনিয়নের তুলাতলী গ্রামের টমটম চালক শহীদুল্লাহ’র স্ত্রী বুলবুল আকতার অভিযোগ করে জানান, জায়গা-জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে রাজাপালং ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের তুলাতলী গ্রামের মৃত ছব্বির আহমদের ছেলে ইমাম হোসেনের সাথে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এ নিয়ে একাধিকবার হুমকি ধমকি ও হামলার শিকার হয়েছে তার পরিবার।

১৫ আগস্ট সকাল ১০টার দিকে জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় উখিয়া যাওয়ার পথে ৪০ জনের গাড়ীর বহর থেকে টানা-হেচড়া করে তার স্বামীকে নামিয়ে মারধর পূর্বক ইয়াবা দিয়ে টহলরত বিজিবি সদস্যদের হাতে তুলে দেয়।

তার স্বামী ইয়াবা কিংবা মাদকের সাথে সংশ্লিষ্ট নেই এমনটি দাবী করে বলেন, অথচ আজ রোববার ৯৬০টি ইয়াবা দিয়ে মিথ্যা মামলায় পুলিশের নিকট সোপর্দ করেছে।

এ সময় স্বামী শহীদুল্লাহ’র নি:শর্ত মুক্তিসহ অভিযুক্ত ইমাম হোছনের অপকর্মের বিরুদ্ধে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট আইন প্রয়োগকারী সংস্থার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন বুলবুল আকতারসহ ভুক্তভোগীরা।

শহীদুল্লাহ’র বড় বোন শামশুন নাহার বলেন, জমি সংক্রান্ত পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ইমাম হোছন তার ভাইকে মারধর পূর্বক মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়েছে। তার ভাই কিস্তিতে একটি টমটম চালিয়ে কষ্ট করে সংসার চালাচ্ছে। তার ভাইকে ন্যায় বিচারের মাধ্যমে মিথ্যা মামলা থেকে মুক্তি পূর্বক ইমাম হোছনের বিরুদ্ধে আইনী পদক্ষেপ নেয়ার দাবী জানায়।

তুলাতলী গ্রামের আব্দুল করিম নামে এক প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, আমরা একটি ক্লাবের হয়ে জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠানে যাওয়ার সময় অতর্কিত হামলার ঘটনাটি করেছে ইমাম হোসেন। ওই সময় মারধরে শিকার শহীদুল্লাহ বিবস্ত্র হয়ে গেলেও তার শরীরে ইয়াবার কোন অস্থিত্ব দেখিনি। অথচ আজ তাকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানো হয়েছে এমনটি দাবী তার।

ওই গ্রামের ছৈয়দ কাশেম নামে আরেকজন অভিযোগ করে বলেন, ইমাম হোছন নিজেকে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সোর্স পরিচয়ে এলাকার নিরহ লোকজনকে হয়রানি করছে। ইয়াবাসহ বিভিন্ন মামলায় ফাঁসানোর ভয়ে অনেকে গ্রামছাড়া হয়েছে। গতকাল শত শত জনতার সামনে শহীদুল্লাহকে মারধর পূর্বক বিজিবিকে হস্তান্তর করে। যা সম্পূর্ণ অন্যায় ও মিথ্যা বলে তার দাবী।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: