সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ১০:৪১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে রহস্যের আগুন, অগ্নিনির্বাপক কর্মীদের ওপর হামলার চেষ্টা উখিয়ায় মাদ্রাসা ছাত্রী অপহরণ : ৯ দিনে উদ্ধার হয়নি লকডাউনে মসজিদে ২০ জনের বেশি নয়: ধর্ম মন্ত্রণালয় ভালো আছেন খালেদা জিয়া, চেয়েছেন দেশবাসীর দোয়া স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন”টিম এইট”র উদ্যোগে হতদরিদ্রের ইফতার সামগ্রী বিতরণ বিকালে খালেদা জিয়াকে দেখতে আসছেন চিকিৎসকরা উখিয়ার বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অগ্নিকান্ড ১৪-২১ এপ্রিল বাড়ির বাইরে যাওয়া যাবে না টেকনাফে ১০ হাজার ইয়াবাসহ দুই মাদক কারবারী গ্রেফতার নাইক্ষ্যংছড়ির দূর্গম ক্রোরিক্ষংয়ে বীর বাহাদুর শিশু সদন হোস্টেল উদ্বোধন ও পানির সেচ পাম্প বিতরণ

মঙ্গলবার উখিয়ার ৫ জনসহ কক্সবাজার ল্যাবে ৮১ জনের করোনা শনাক্ত

CBN / ৮৩ বার
আপডেট মঙ্গলবার, ৬ এপ্রিল, ২০২১, ৪:৩০ অপরাহ্ন
করোনা আপলোড

মঙ্গলবার ৬ এপ্রিল কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের ল্যাবে ৫৫৩ জনের নমুনা টেস্ট করে ৮১ জনের টেস্ট রিপোর্ট ‘পজেটিভ’ পাওয়া গেছে। বাকী ৪৭২ জনের নমুনা টেস্ট রিপোর্ট ‘নেগেটিভ’ আসে।

কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের ট্রপিক্যাল মেডিসিন ও সংক্রামক ব্যাধি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. শাহজাহান নাজির এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মঙ্গলবার শনাক্ত হওয়া ৮১ জন করোনা রোগীর মধ্যে ১ জন আগে আক্রান্ত হওয়া পুরাতন রোগীর ফলোআপ টেস্ট রিপোর্ট। ৩ জন বান্দরবান জেলার ও ৫ জন চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার নতুন রোগী। অবশিষ্ট ৭২ জন করোনা শনাক্ত হওয়া নতুন রোগীর সকলেই কক্সবাজারের রোগী। তারমধ্যে, কক্সবাজার সদর উপজেলায় ৪৬ জন, রামু উপজেলায় ২ জন, উখিয়া উপজেলায় ৫ জন, টেকনাফ উপজেলায় ৩ জন, চকরিয়া উপজেলায় ৭ জন, পেকুয়া উপজেলায় ৪ জন এবং মহেশখালী উপজেলার ৫ জন রোগী রয়েছে।

এনিয়ে, মঙ্গলবার ৬ এপ্রিল পর্যন্ত কক্সবাজার জেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা হলো-মোট ৬ হাজার ৮ শত ৩২ জন। কক্সবাজার জেলায় করোনা আক্রান্ত রোগীর মধ্যে শুধু সদর উপজেলার রোগী রয়েছে ৩৩৫৩ জন। যা জেলার মোট আক্রান্তের প্রায় অর্ধেক। এরমধ্যে, গত ৫ এপ্রিল পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে জেলায় মৃত্যুবরণ করছে ৮৪ জন। তারমধ্যে, ১০ জন রোহিঙ্গা শরনার্থী। আক্রান্তের তুলনায় মৃত্যুর হার ১’২৪%।

এদিকে, গত ৫ এপ্রিল পর্যন্ত কক্সবাজার জেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে ৫ হাজার ৯৩১ জন রোগী সুস্থ হয়েছেন। আক্রান্তের তুলনায় সুস্থতার হার ৮৭’৭২%।আক্রান্তদের মধ্যে গত ৫ এপ্রিল পর্যন্ত হোম আইসোলেসনে রয়েছেন ৫১৩ জন, প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেসনে রয়েছেন ১৫২ জন। তারমধ্যে, কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের আইসোলেসনে রয়েছেন ৩৬ জন, রামু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেসনে রয়েছেন ৩ জন, ফ্রেন্ডশিপ SARI হাসপাতালে রয়েছেন ১৫ জন, রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্পের অভ্যন্তরে আইসোলেসন সেন্টার সমুহে রয়েছেন স্থানীয় জনগণ ৮৬ জন এবং রোহিঙ্গা শরনার্থী রয়েছেন ১২ জন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: