শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২, ০২:৫০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ছুরিকাঘাতে যুবক খুন, আটক-২ ক্যাম্প থেকে এক বছরে ৪৭৮জন সন্ত্রাসী আটক ও ১৩২টি অস্ত্র উদ্ধার করেছে ৮এপিবিএন উপজেলা পরিষদের কার্যক্রম ও সেবা সংক্রান্ত ‘গণশুনানি’ উখিয়ায় অনুষ্ঠিত অগ্নিকান্ডে গৃহহারা রোহিঙ্গাদের মাথা গোঁজার ঠাঁই হয়েছে উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পের আগুন নিয়ন্ত্রণে উখিয়ার শফিউল্লাহকাটা রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আগুন ‘রোহিঙ্গা সংকট মোকাবিলায় বাংলাদেশের পাশে থাকবে তুরস্ক’ নাইক্ষ্যংছড়ির গহীন অরণ্য থেকে ৪ সন্ত্রাসীকে অস্ত্রসহ আটক  উখিয়ায় ৪৩ তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ-২০২১ সম্পন্ন উখিয়ার হলদিয়া পালংয়ের মৌলভীপাড়ায় আজ তাফসীর মাহফিল

প্রধানমন্ত্রী ও প্রধান বিচারপতি বিক্রি হয়ে গিয়েছেন দাবি নৌকার চেয়ারম্যানের

বার্তা পরিবেশক: / ৫৯৪ বার
আপডেট শনিবার, ১ জানুয়ারী, ২০২২, ৪:১২ পূর্বাহ্ন

প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা, প্রধান বিচারপতি, হাইকোর্ট, জজ কোর্ট, সুপ্রিম কোর্ট ও অ্যাটর্নি জেনারেলকে এক ব্যক্তি কিনে ফেলেছেন বলে দাবি করেছেন নৌকা মার্কা নিয়ে নবনির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান। কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার রত্নাপালং ইউনিয়ন থেকে নৌকা প্রতীক নিয়ে সদ্য নির্বাচিত চেয়ারম্যান নূরুল হুদা সম্প্রতি একটি অনুষ্ঠানে বক্তৃতা দেওয়ার সময় এ দাবি করেন। তার এই বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। নির্বাচিত হওয়ার পরেও আইনি জটিলতায় শপথ নিতে পারেননি এই আওয়ামীলীগের টিকেটে মনোনিত এই চেয়ারম্যান।

গত ২৬ ডিসেম্বর সকালে কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার কোর্টবাজারে একটি বেসরকারী ব্যাংকের নতুন শাখার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখছিলেন নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান নূরুল হুদা।
এ সময় তিনি দাবি করেন, তার প্রধান প্রতিদন্ধি প্রার্থী নুরুল কবির চৌধুরী বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ, আওয়ামীলীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা, হাইকোর্ট, জজ কোর্ট, সুপ্রিম কোর্ট, প্রধান বিচারপতি ও অ্যাটর্নি জেনারেলসহ সকালকে কিনে ফেলেছেন। তাই নির্বাচিত হয়ে গেজেট প্রকাশের পরও তিনি শপথ নিতে পারছেননা।

গত ১১ নভেম্বর উখিয়ার রত্নাপালং ইউনিয়নের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এই নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী নুরুল হুদার মনোনয়ন বৈধতা নিয়ে উচ্চ আদালতে বিচার চলছে। যার ফলে গেজেট প্রকাশের পরও তিনি শপথ গ্রহন করতে পারেননি। তবে উখিয়ার অন্য ৪টি ইউপিতে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যন মেম্বারগন শপথ গ্রহন করেছেন। এমনকি রত্নাপালং ইউনিয়নের নব নির্বাচিত ইউপি সদস্যগন শপথ গ্রহন করেছেন।

ঐ অনুষ্ঠানে নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান নুরুল হুদা বলেন, আমার প্রতিপক্ষ নুরুল কবির চৌধুরী ৬বার নির্বাচন করে একবার নির্বাচিত হয়েছেন। বাকি ৫ বার পরাজিত হয়ে তিনি জয়ী প্রার্থীর জন্য মামলা করেন। আমি আজ ঢাকা যাবো সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন। আমি যেন সুস্থ ও সুন্দর মানসিকতায় ঢাকা থেকে ফিরতে পারি।

গত ১৪ ডিসেস্বর উখিয়া নির্বাচিত ইউপি চেয়াম্যানদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের জন্য চিঠি দেন। শেষ মূহুর্তে জেলা প্রশাসক রত্নাপালং এর চেয়ারম্যানকে শপথ পাঠ থেকে বিরত রাখেন। এসময় জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আইনী জটিলতা শেষে নুরুল হুদাকে শপথ গ্রহণের কথা বলেন।

গত কয়েকদিন ধরে নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান নুরুল হুদার বিতর্কিত বক্তব্যের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

এ ব্যাপারে উখিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাহাবুবুর আলম মাহাবুব বলেন, আওয়ামী যুগ্ম সাধারণ হিসেবে তিনি এমন বক্তব্য দিতে পারেন না। দলের সভানেত্রীর, দেশের সর্বোচ্চ আদালত ও প্রধান বিচারপতির ব্যাপারে এমন বিরূপ মন্তব্য করলে তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা উচিত। বিষয়ে তদন্ত পূর্বক সাংগঠনিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের প্রতি অনুরোধ করছি।

উখিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী ফোন রিসিভ না করায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

একই বিষয়ে উখিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরী বলেন, এভাবে বলা সমীচীন নয়। তবে এ বিষয়ে আমি এখনো কিছু জানি না। এ ব্যাপারে আমার খোঁজখবর নিতে হবে।

এ ব্যাপারে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ও উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক টিমের প্রধান শাহ আলম চৌধুরীর (রাজা শাহ আলম) সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান নুরুল হুদার বক্তব্যটি আমি শুনে রীতিমত নার্ভাস হয়েছি। উখিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নুরুল হুদা এমন বক্তব্য কোনভাবে দিতে পারে না। সে কিভাবে আওয়ামী লীগের সভানেত্রীর ব্যাপারে এমন মন্তব্য করলো আমার বোধগম্য হচ্ছে না। বিষয়টি নিয়ে জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির সভায় আলোচনা করে পরবর্তী সিন্ধান্ত নেবো। এধরনের বিতর্কিত ও আপত্তিকর বক্তব্য জেলা আওয়ামীলীগ বিব্রত ।

এই বিষয়ে নব নির্বাচিত প্রার্থী নুরুল হুদা বলেন, নির্বাচনে পরাজিত প্রার্থী নুরুল কবির ও তার কিছু অনুসারী পরিকল্পিত ভাবে আমার (নুরুল হুদার) বক্তব্যকে বিক্রিত করে অপপ্রচারের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। এই ধরনের বক্তব্য আমি দেইনি। আমার মূল বক্তব্যকে এডিট করে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: