বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ০৮:০৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
তিন পার্বত্য জেলার ৭টি পৌরসভায় ব্যাপক উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে : পার্বত্যমন্ত্রী বাইশারীতে গ্রামীন সড়ক দিয়ে উন্নয়নের নামে ভারী পাথর বোঝাই ৩৫ টনের ট্রাক করোনায় মধুখালী উপজেলা চেয়ারম্যানের মৃত্যু কুতুবদিয়াবাসীকে কাঁদালো সোনিয়া! ওসি প্রদীপের সহযোগী কনস্টেবল রুবেল শর্মার আরো ৮ দিনের রিমান্ড আবেদন রাঙ্গামাটিতে নিজ ঘরে শিশুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার ৪২ লাখ টাকার বিদেশি মুদ্রাসহ দুবাইগামী যাত্রী আটক উখিয়ার মরিচ্যায় সড়ক অবরোধ করে দুই চেয়ারম্যানের পাল্টাপাল্টি সমাবেশ কক্সবাজারের সকল থানা থাকবে দালাল মুক্ত : সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে এসপি হাসানুজ্জামান মেরিন ড্রাইভের পাশে শতাধিক দোকানের মালিক রোহিঙ্গারা : চালাচ্ছে ইয়াবা ব্যবসা

টিকা নিয়ে স্বেচ্ছাসেবী অসুস্থ হওয়ায় অক্সফোর্ডের ট্রায়াল বন্ধ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, / ৫২ বার
আপডেট বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ০৮:০৬ অপরাহ্ন
ছবি: সংগৃহীত

করোনা প্রতিরোধে তৃতীয় ও চূড়ান্ত ধাপের ট্রায়াল চালাচ্ছে যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় ও ওষুধ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান অ্যাস্ট্রাজেনেকা। সম্প্রতি ট্রায়াল চলতে থাকা এই টিকা গ্রহণের পর অসুস্থ হয়ে পড়েছেন এক স্বেচ্ছাসেবী। আর তাই করোনার সম্ভাব্য প্রতিষেধকের পরীক্ষা বন্ধ রাখা হয়েছে।

আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। তবে স্বেচ্ছাসেবীর অসুস্থতা সম্পর্কে তেমন কিছু জানায়নি অ্যাস্ট্রাজেনেকা।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অক্সফোর্ডের টিকার একটি আন্তর্জাতিক পরীক্ষা আপাতত বন্ধ রাখা হয়েছে। এ পরীক্ষার স্বতন্ত্র তদন্ত পর্যালোচনা করে তারপর নিয়ন্ত্রকেরা এ পরীক্ষা চালানো হবে কি না, এর অনুমতি দেবেন।

এ বিষয়ে অক্সফোর্ডের এক মুখপাত্র বলেন, বড় ধরনের পরীক্ষায় মাঝে মধ্যেই অসুস্থতার ঘটনা ঘটে। তবে সতর্কতার সঙ্গে এর পর্যালোচনা করতে হবে। এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো অক্সফোর্ডের টিকার পরীক্ষা বন্ধ হলো। বড় ধরনের টিকা পরীক্ষার ক্ষেত্রে এটি সাধারণ ঘটনা। কোনো স্বেচ্ছাসেবী হাসপাতালে ভর্তি হলে তখন সঙ্গে সঙ্গে পরীক্ষা বন্ধ করে দেওয়া হয়। কয়েকদিনের মধ্যেই পরীক্ষা আবার শুরু হতে পারে।

অক্সফোর্ডের টিকার প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপের সফল পরীক্ষার পর এটি তৃতীয় ধাপের পরীক্ষা যুক্তরাজ্য ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল ও দক্ষিণ আফ্রিকায় চালানো হচ্ছে। তৃতীয় ধাপের পরীক্ষায় হাজারো অংশগ্রহণকারীর শরীরে টিকা প্রয়োগ করে এর কার্যকারিতা পরীক্ষা করে দেখা হয়।

এদিকে মঙ্গলবার নয়টি টিকা প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান একটি চুক্তিতে সই করেছে। যেখানে বলা হয়েছে টিকার তৃতীয় ধাপের পরীক্ষা শেষ না হলে কেউ অনুমোদনের জন্য আবেদন করবে না। এতে স্বাক্ষরকারীদের মধ্যে অ্যাস্ট্রাজেনেকা ছাড়াও জনসন অ্যান্ড জনসন, বায়োএনটেক, গ্লাক্সোস্মিথক্লাইন, ফাইজার, মের্ক, মডার্না, সানোফি ও নোভাভ্যাক্স রয়েছে।

সূত্র:বার্তা২৪


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: