শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯:৫০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান মিয়ানমারকেই করতে হবে মাথা গোঁজার ঠাঁই পেলেন তারা সাংবাদিক ইউনিয়নের স্মরণ সভায় বক্তারা: মোনায়েম খাঁন সৎ সাংবাদিকতার উজ্জল দৃষ্টান্ত লোন জালিয়াতি: বান্দরবান জেলা উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা সহকারী পরিচালক মঞ্জুরের মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে আবেদন সাংবাদিক ফরিদুল মোস্তফার কক্সবাজার কলেজ ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক সাধারণ সম্পাদককে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা কক্সবাজারে যোগ দিচ্ছেন ১ হাজার ৩৪০ পুলিশ সদস্য তুমব্রু নো ম্যান্স ল্যান্ডের রোহিঙ্গারা জড়িয়ে পড়ছেন অপরাধে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেল ‘মুক্তি কক্সবাজার আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় কোটি টাকার সম্পদসহ বিলীনের পথে স্কুলটি
অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান নিহতের ঘটনার পরপরই মামলা করে পুলিশ। সেই মামলায় যাদের সাক্ষী করা হয়েছে তাদের দুইজন জানিয়েছেন তারা ঘটনা চোখেও দেখেননি, কানেও শোনেননি। অথচ ঘটনার সাক্ষী বিস্তারিত...
কক্সবাজারের পেকুয়ায় আবদুল মালেক নামের (৩০) এক যুবককে অপহরণকারীর কাছ থেকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করেছে এলাকাবাসীসহ একদল গ্রাম পুলিশ। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার টইটং ইউনিয়নের দুর্গম এলাকা
টেকনাফে অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান পুলিশের গুলিতে নিহত হওয়ার ঘটনায় একটি মোবাইল কথোপকথন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। এতে স্পষ্ট হয়ে উঠেছে, ওসি প্রদীপ কুমার দাসের নির্দেশেই মেজর
মেজর (অবঃ) সিনহা মোঃ রাশেদ খান হত্যা মামলার জেলে যাওয়া ৭ আসামীকে চাকুরী থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে। তারমধ্যে, প্রত্যাহারকৃত টেকনাফের সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ও বাহারছরা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের
কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড়ের মৃত ছৈয়দ আলমের ছেলে চৌকিদার বেলাল উদ্দিন সদ্য প্রত্যাহার হওয়া ওসি প্রদীপের সহযোগীতায় অসহায় মানুষ কাছ থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করেছে বলে
কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ থেকে আসামি আবু বকর সিদ্দিক পালানোর ঘটনায় কারাগারের ছয় কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এ ঘটনায় আরও ছয় জনের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা হয়েছে। আইজি প্রিজন ব্রি. জে.
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের নিয়মিত বদলি বাধ্যতামূলক করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। ফলে একই বিদ্যালয়ে দীর্ঘ সময় থাকার সুযোগ আর পাবেন না সহকারী ও প্রধান শিক্ষকরা। এ সংক্রান্ত
সারাদেশে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক উপস্থিতি শতভাগ নিশ্চিত করতে বায়োমেট্রিক হাজিরা সিস্টেম চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছিল প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। এরই ধারাবাহিকতায় ২০১৮-১৯ অর্থবছরে লামা উপজেলার ৮৫টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে ৭৮টি বিদ্যালয়ে