Logo

রামু পেঁচারদ্বীপ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সৈয়দ আলম মাদক মামলায় জেল হাজতে

নিজস্ব প্রতিবেদক: / ৩১০ বার
আপডেট সময় : শনিবার, ২৫ জুলাই, ২০২০

কক্সবাজারের রামু উপজেলার খুনিয়া পালং ইউনিয়নের পেঁচারদ্বীপ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মোঃ সৈয়দ আলমকে মাদক মামলায় জেল হাজতে প্রেরণ করেছে আদালত। গত ১৯ জুলাই আদালতে হাজির হয়ে সে জামিন আবেদন করিলে আদালত জামিন না-মঞ্জুর করে তাকে কারাগারে প্রেরণ করেন। সে রামু উপজেলার গোয়ালিয়াপালং গ্রামের মৃত রাজা মিয়ার ছেলে।

ওই শিক্ষকের বাড়ি রামুর গোয়ালিয়াপালং গ্রামে হলেও সে বাসা বাড়ি নিয়ে কক্সবাজার ঝাউতলা গাড়ির মার্ট এলাকায় বসবাস করে আসছে দীর্ঘদিন থেকে । তার বাসাবাড়ি ছিল মোস্তাকের ইয়াবা পাচারের মূল পরিকল্পনার স্থান।

এছাড়াও সৈয়দ আলম ইয়াবা গডফাদার মোস্তাক আহমদ( কারাগারে), তার বড় ভাই মনসুর মিয়ার মাস্টারমাইন্ড ও তাদের স্থাবর,অস্থাবর যাবতীয় সম্পদের রক্ষণাবেক্ষণকারী এবং ইয়াবা ও মানব পাচারের পলিসি মেকার ছিলেন।

সুত্রমতে, তাদের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে রামু উপজেলার তুলাবাগান পুলিশ ফাঁড়িতে মাদক জব্দের ঘটনায় সৈয়দ আলমসহ অপরাপর ৩জনের নামের একটি মাদক মামলা রুজু হয়। মামলা নম্বর- ১১। জি আর মামলা নম্বর- ১৮১/২০১৯, তারিখ -০৯/০৬/২০১৯। উক্ত মামলায় সে সহ বর্তমানে তিনজন কারগারে আছে বলে সুত্র নিশ্চিত করেছে।

উল্লেখ্য সরকার মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা পর থেকে সারাদেশে মাদক বিরোধী অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় কক্সবাজার জেলায় মাদক নির্মুলে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে প্রশাসন। এরই প্রক্ষিতে রামু উপজেলার এসব মাদক কারবারিকে আটক করে পুলিশ।

স্থানীয় এলাকাবাসির দাবী ওই শিক্ষক সৈয়দ আলমকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে মোস্তাকের যাবতীয় স্থাবর, অস্থাবর সম্পদের হিসাব মিলবে।
আর সে মাদক মামলায় কারাগারে থাকলেও তার বিরুদ্ধে শিক্ষা বিভাগ ব্যবস্থা নিচ্ছে কিনা তা এবার দেখার বিষয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: